Image Not Found!
ঢাকা   ২৬ নভেম্বর ২০২২ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সর্বশেষ সংবাদ

  দেশজুড়ে ওএমএস সুবিধায় সাড়া,স্বল্পমূল্যে চাল-আটা পেয়ে খুশি কার্ডধারীরা (2)        দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি ও বাজার স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার-ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার শফিকুর রেজা বিশ্বাস (94)        সুইস রাষ্ট্রদূতের বক্তব্য ভুল ছিলো,অন্যরকম জয় পেলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন (3)        তারাকান্দায় বায়তুল আমান জামে মসজিদ ও নূরুল উলুম কওমী মাদ্রাসার কমিটি গঠিত (89)        আগামী মাসে সব স্বাভাবিক হবে-পরিকল্পনামন্ত্রী (2)        শিক্ষক বাতায়নে দেশ সেরা অনলাইন পারফর্মার রেহেনা আক্তার ঝর্ণা (94)        ময়মনসিংহে নারীদের জন্য বিশেষ আয়োজন ‘নিহার লাভলী টাইম উইথ তানজিন তিশা’ (94)        বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণ করাই আমার লক্ষ্য-প্রধানমন্ত্রী (3)        তারাকান্দায় ভূমিহীনদের জন্য তৈরী প্রধানমন্ত্রীর ২৬ হাজার ২ শত ২৯ টি গৃহের উদ্ভোধনী অনুষ্ঠান পালিত (94)        বিদ্যুৎ ব্যবহারে মিতব্যয়ী হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর (2)      

বাংলাদেশের স্বার্থবিরোধী মোদিকে কোনোভাবে বাংলাদেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না-আব্দুর রব ইউসুফী।

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমন ঠেকাতে আগামী ২৬ মার্চ সবাইকে রাস্তায় নেমে আসার আহ্বান জানিয়ে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি ও সমমনা ইসলামিক দলগুলোর সমন্বয়ক আব্দুর রব ইউসুফী ।তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বার্থবিরোধী মোদিকে কোনোভাবে বাংলাদেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না।’ একইভাবে মোদির আগমনের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে মিছিল করে প্রগতিশীল ছাত্রজোট।

শুক্রবার (১৯ মার্চ) জুমার নামাজের পর বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে বিক্ষোভ মিছিল থেকে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অন্য সব রাজনৈতিক দলের মতো উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপন করতে চাই। ডিএমপির মাধ্যমে আওয়ামী লীগ সব ধরনের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। অনুষ্ঠানে বিদেশি অনেক অতিথি আসবেন। তাদের আমরা স্বাগত জানাই। কারণ, এটা আমাদের মর্যাদার বিষয়। কিন্তু ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আমাদের পানি দিয়ে মারে, আবার পানি না দিয়েও মারে। নরেন্দ্র মোদির হাতে আমাদের ভারতের মুসলমানের রক্ত লেগে আছে।’

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশের ১০ দিনব্যাপী আয়োজনের সূচনা হয়েছে গত ১৭ মার্চ, জাতির জনকের জন্মদিনে। ২৬ মার্চ স্বাধীনতার ৫০তম বার্ষিকীতে তার সমাপ্তি হবে। প্রতিবেশী পাঁচ দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানরাও বাংলাদেশের এ উদযাপানের সঙ্গী হচ্ছেন। আয়োজনের প্রথম দিন গত বুধবার জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডের অনুষ্ঠানে যোগ দেন মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহাম্মদ সলিহ। এছাড়া নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভাণ্ডারী ২২ মার্চ, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং ২৪ মার্চ এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে ঢাকায় আসবেন।